রম্যকাব্য ||লজিং||

অনেক হলো আর মানে না
যুবক পোলার মনটা।
দিবানিশি হৃদয়ে তার
বাজে বিয়ের ঘন্টা।
.
ঘন্টা-ধ্বনি সে-ই শোনে
শোনে না তার গার্জেন।
ইচ্ছে করে দেশটা ছেড়ে
যায় হয়ে সে টার্জেন।
.
আজকে পোলা বুদ্ধি করে
গিয়ে বলে, আব্বা!
ঘরে তো নাই খাওয়ার অভাব
একটা লজিং রাখবা?
.
বাবায় বলে, বললি তো ঠিক
করি কিছু পুন্য।
গুনার খাতা হইছে ভারি
নেকের খাতা শূন্য।
.
পোলায় এবার কয়, বাবা_ সে
থাকবে ঘরেই আমগো।
বাব চেতা! ঘর খালি নাই
থাকব কোথায়- গাঙ্গো?
.
কী কও বাবা? এমন কথা
মানায় না তো বঙ্গে।
সে তো শুধু খাইব তোমার
থাকব আমার সঙ্গে।
.
বাবায় এবার খুশিতে কয়,
আয় নিয়ে তোর লোকটা।
পোলায় নেচে যায় বেরিয়ে
ফুলিয়া তার বুকটা।
.
পর সকালে! পোলার ডাকে
বাপে দেখে চাইয়া।
পোলার পাশে খাড়া একটা
ঘোমটা পরা মাইয়া।
.
জিগায় বাবা, ঘোমটা পরা_
কে -পোলা- এই লাড়কি?
:এটাই তোমার লজিংছেড়ি
আমার বিবি আর কি।
.
পা ছুঁয়ে মেয়ে সালাম করে
বাবায় হতভম্ব।
বউ নিয়ে সে ঘরে ঢুকে
বুক ভরা তার দম্ভ।
.
…আব্দুল্লাহ আল মাসউদ

Abdullahalmasud

লেখক হওয়ার স্বপ্ন বুনি

৪ thoughts on “রম্যকাব্য ||লজিং||

  • মার্চ ৩, ২০১৯ at ১:০৯ অপরাহ্ণ
    Permalink

    অনেক ভালো হয়েছে
    তবে লজিং দেখে মনে পড়ল, যেভাবে কোচিং নিষিদ্ধ করা হচ্ছে লজিং আবার ফিরে আসে কি না !

  • মার্চ ৪, ২০১৯ at ২:২৫ অপরাহ্ণ
    Permalink

    খুব ভালো লেখেছেন। আমার থেকে খুব ভালো লেগেছে। হা ঠিক বলেছেন

  • মার্চ ৪, ২০১৯ at ৭:০২ অপরাহ্ণ
    Permalink

    বিশ্বাস করুন আমার দারুণ লেগেছে । শেষের টুইস্ট টা জোস হয়েছে

Leave a Reply