ব্রেকআপের পর,,, মন ও শরীর ভালো রাখবেন যেভাবে।।

 

ব্রেকআপ কষ্টের, কঠিন,হৃদয়ের সাংঘাতিক যন্ত্রনা। ব্রেকাপের পর  আপনি  সুখ,শান্তি,প্রফুল্লতা অনুভব করবেন না।  এই কষ্টের অনুভূতি সাধারন কিন্তু এটি সত্য।  তবে হ্যাঁ সবার জন্য ব্রেকাপ কষ্টের নাও হতে পারে। তবুও বেশীরভাগ ক্ষেত্রে কষ্ট অনুভব হয়।

আপনি কিছু সময় সুখের মাধ্যমে অতিবাহিত করতে পারবেন,যদি আপনি চেষ্টা করেন পুরনো কষ্ট, স্মৃতি গুলো ভুলে যেতে। আপনার অবসর সময়ে পুরনো স্মৃতিগগুলো মনে পড়ে,তাই আপনাকে অবসর সময়ে কাজে ব্যস্ত থাকতে হবে। তাহলে আপনার মুড চেঞ্জ হবে,তার সাথে চেঞ্জ হবে আপনার জীবন।

১।যে রকম অনুভূতি হয় ব্রেকাপের পরে
আপনি নিজের সম্পর্কে চিন্তা করুন! ব্রেকাপ কি আপনার কারনে হয়েছে,নাকি আপনার প্রেমিকার কারনে।যদি আপনার কারনে না হয়ে থাকে,তাহলে ভালো কথা! প্রথম স্টেপ এ আপনি সফল।
দ্বিতীয় স্টেপ হচ্ছে ব্রেকাপ যদি আপনার প্রেমিক/প্রেমিকার কারনে হয়ে থাকে তাহলে খুঁজে দেখুন কি কারনে হয়েছে, হয়ত দেখবেন পরিবারের কারনেও ব্রেকাপ হয়েছে। অথবা তার মনে অন্য কোন নায়ক/নায়িকার আর্বিভাব হয়েছে।নিজেকে শান্ত  রাখুন। যা হবার তা হয়ে গেছে।এখন আর আফসোস করে লাভ নেই। ব্রেকাপের পর সকলের মন খারাপ থাকে,অনেকে আবার আত্মহত্যা করে।

২। ব্রেকাপের কষ্টকে বিদায় দিবেন যেভাবে

আপনার সম্পর্ক যদি দীর্ঘ দিনের হয়ে থাকে তাহলে কষ্ট দুর হতেও কিছু সময় লাগবে।  একটা উদাহরন দিচ্ছি, আপনার রিলেসন যদি হয় ৩ মাসের তাহলে কষ্ট হবে ৩ বছরের। অনেকের জন্য হয়ত এই কষ্ট এক সপ্তাহের অনেকের জন্য এক মাসের,আবার অনেকের জন্য আজীবনের। তাই আপনাকে চেষ্টা করতে হবে যাতে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তাকে ভুলে,নতুন করে  জীবন শুরু করা।

আপনার এই অনুভূতিকে জীবনের সাধারন একটি অংশ মনে করুন। ব্রেকাপ হলে অনেকে রেগে যায়,খাওয়া বন্ধ করে দেয় ইত্যাদি, এতে না হয় উপকার উল্টো হয় নানাদিক  ক্ষতি।  এই রকম অভ্যাস থাকলে আপনি সুখ অনুভব করতে পারবেন না। আপনার জীবনের কষ্টগুলোকে একটি  ডায়রিতে লিখে রাখুন,বিসস্ত বন্ধুদের সাথে এসব বিষয়ে আলোচনা করুন,পরামর্শ নিন।

আপনি পর্যাপ্ত সময় বিশ্রাম নিন, বড় কোন ছুটি থাকলে বনভোজনে যান,প্রকৃতি উপভোগ করুন,সাগরের নির্মল দোলাগুলো বুকে জড়িয়ে নিন। সকালে দোয়েলের মিষ্টি শিশ শুনুন,তাহলে মন হাল্কা হলেও সুখ অনুভব করবে।

৩। লাইফস্টাইল পরিবর্তন করুন

প্রতি দিন ৩০ মিনিট ব্যায়াম করুন। ব্যায়ামের মাধ্যমে আপনার মানসিক ভারসাম্য বজায় থাকবে,মন থাকবে প্রফুল্ল, ব্রেনের হরমোন বৃদ্ধি পাবে। প্রতিদিন ব্যায়াম করার মাধ্যমে আপনি নিজেকে নিজেই সুস্থ্য করতে সাহায্য করছেন। আপনি যদি কোন ব্যায়াম না পারেন বা ব্যায়ামের যন্ত্রাদি না থাকে তাহলে হাঁটুন,সাঁতার কাটুন,সাইকেল চালান। কিছু ব্যায়াম বা কাজ নির্বাচন করে রাখুন যেগুলোর মাধ্যমে আপনি আনন্দ পেয়ে থাকেন,যেমন বক্সিং, ডান্সিং অথবা বন্ধুদের সঙ্গে মজার গল্প জোকস নিয়ে মেতে থাকুন।

ইউটিউব থেকে ভালো ভালো মজার ভিডিও দেখতে পারেন,বিভিন্ন বই বা গল্প পড়তে পারেন।

৪। পুষ্টিকর খাবার গ্রহন করুন

ব্রেকাপের পরে অনেকে খাওয়া দাওয়া বন্ধ করে দেয়।এটি মোটেও আপনার শরীর ও মনের জন্য শুভ নয়। কেননা খাবার না গ্রহন করার ফলে আপনার শরীর দুর্বল হয়ে পড়বে, আবার মন খারাপ থাকলে শরীর শুকিয়ে দুর্বল হয়ে পড়বে। তাই একসাথে দুটোকে উপোষ রাখা ঠিক হবে না।
পুষ্টিকর খাবার,ফল-মূল গ্রহন করুন।

আরো পড়ুন- চা খাওয়ার উপকারিতা, সিলেটি ভাষা

৫। অ্যালকোহল পরিহার করুন

সকল ধরনের বিড়ি সিগারেট পরিহার করুন।মদ,গাঁজা,সিগারেট ইত্যাদি শরীরের অনেক ক্ষতি করে থাকে। যদিও এগুলো সাময়িক সময়ের জন্য কষ্টগুলোকে ভুলিয়ে রাখে,কিন্তু এর পরবর্তী পরিণতি ধ্বংসাক্তক।

৬। নিয়মিত ঘুম, বিশ্রাম এবং শখের কাজ করুন

দৈনিক ৭-৯ ঘন্টা ঘুম যান।  তাছাড়া যৌগ ব্যায়াম করুন। পছন্দের সফট ড্রিংকস ওয়াটার পান করুন।  আপনার পছন্দের শখের ওপর কাজ করুন, কিছু সময় প্রকৃতিকে উপভোগ করার জন্য ব্যয় করুন।বাগান করুন, গান শুনুন অথবা গাইতে পারেন, আত্মীয় স্বজনদের বাড়িতে বেড়াতে যান,বই পড়ুন।

তাহলে হয়তো আপনার মানসিক কষ্ট মুছে যাবে। শুরু করতে পারবেন নিজের জীবনকে আনন্দময় করে।

তথ্যসূত্র :উকিহাউ ডটকম
লিংক : https://m.wikihow.com/Feel-Better-After-a-Breakup

Shamim Mahmud

আমি শামীম মাহমুদ। অনলাইনে লিখতে ভালোবাসি।পড়ালেখা বলতে কিছুই নাই,শুধু ভন্ডামি আর দুষ্টামি করি।তবুও মাঝেমাঝে হাল্কা পড়াশোনা করি লক্ষ্মীপুর সরকারী কলেজ এ ইন্টার ফার্স্ট ইয়ারে। আশা আছে এই ওয়েব সাইটটিকে সারা বিশ্বের বাংলা ভাষাভাষীদের জন্য জনপ্রিয় করে তুলতে।

৯ thoughts on “ব্রেকআপের পর,,, মন ও শরীর ভালো রাখবেন যেভাবে।।

Leave a Reply