সিলেটি ভাষা কি বাংলাদেশের ২য় বৃহত্তম জনগোষ্ঠীর ভাষা

খুব সম্ভবত সিলেটি ভাষা বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম জনগোষ্ঠীর ভাষা। উইকিপিডিয়ায় আর্টিকেল দেখতে গিয়ে অবাক হলাম- ওদের নাকি নিজস্ব বর্ণমালাও আছে। বাংলাদেশ ছাড়াও ভারতের আসাম, ত্রিপুরা, মণিপুর, মেঘালয় এবং যুক্তরাজ্যের কিছু অঞ্চলের মানুষেরা এই ভাষায় কথা বলে। বাংলা ট্রিবিউনে একটা আর্টিকেল পড়লাম- ব্রিটেনের কিছু কিছু স্কুলে মাতৃভাষা হিসেবে বাংলার পাশাপাশি সিলেটি ভাষাও শেখানো  হচ্ছে।

সিলেটি ভাষা এবং এর বর্ণমালা

Featured image হিসেবে যে ছবিটি যুক্ত করেছি(আমাদের ওসমানীনগর নামে একটা ব্লগ থেকে নেয়া), সেখানে সিলেটি ভাষার বর্ণমালার একটি ছবি পাবেন। ৩৩ টি বর্ণ নিয়ে ওদের বর্ণমালা যেখান স্বরবর্ণ ৫ টি। এটিও ইন্দো ইউরোপীয় ভাষা থেকে এসেছে। সর্বশেষ বাংলা-অসমীয়া ভাষা থেকে এর উৎপত্তি। মধ্যযুগে এই ভাষার বর্ণমালা তৈরি হয়। এই বর্ণমালাকে বলা হয় নাগরী অক্ষর। মধ্যযুগে এই বর্ণমালার উৎপত্তি ঘটে। বিহারের কৈথী লিপির সাথে এর মিল রয়েছে। বাংলা ভাষার মত এটিও একটি স্বয়ংসম্পূর্ণ ভাষা।

আরো কিছু তথ্য

সিলেটি ভাষাকে এই ভাষাভাষী মানুষেরা “ছিলটি” ভাষা বলে। বর্তমানে বিশ্বে প্রায় ১ কোটি ৬০ লক্ষ মানুষের মুখের ভাষা ছিলটি। গুগোলের প্লেস্টোরে সম্প্রতি একটি এপ প্রকাশিত হয়েছে যেটার মাধ্যমে এই ভাষার বর্ণমালা দিয়ে ছিলটিরা লিখতে পারবেন।

আজকে আর কিছু লিখবো না। খুব সম্ভবত ২৫০ শব্দ হয়ে গিয়েছে। আমিই মনে হয় এই ওয়েবসাইটে প্রথম লিখছি। Bubblews এ আগে লিখতাম। এখানেও সেরকম একটি ভালো বাংলাদেশী community পাবো বলে আশা করছি।

কৃতজ্ঞতা স্বীকার: earki, উইকিপিডিয়া, আমাদের ওসমানীনগর, নাগরী লিপি

nabila

no info

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *